মঙ্গল গ্রহে জন্মানো শাকসবজি খাওয়া কি মানুষের জন্য নিরাপদ?

মঙ্গল গ্রহ, শাকসবজি, গ্রিন হাউস, টমেটো, মটর, রাই ও মুলা

মঙ্গল গ্রহের মাটিতে শাকসবজি যদি উৎপাদন করা যায় এবং তা খাওয়া কি মানুষের জন্য নিরাপদ হবে? সম্প্রতি বিজ্ঞানীরা এই বিষয়টি নিয়ে গবেষণা শুরু করেছিলেন। পৃথিবীতেই মঙ্গলসদৃশ ভূমিতে তারা কয়েক ধরনের শাকসবজি উৎপাদন করেন। তাদের দাবি, এগুলো মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য নিরাপদ।

নেদারল্যান্ডসের ওয়াগেনিজেন বিশ্ববিদ্যালয় এর গবেষকরা গ্রিন হাউস পদ্ধতি ব্যবহার করে মঙ্গল গ্রহের মত পরিবেশ তৈরি করেন এবং তাতে উৎপাদিত চার রকমের সবজি নিরাপদ হিসেবে ঘোষণা করেছেন।

এই ধরনের মাটিতে ক্যাডমিয়াম, তামা, সিসার মত ভারী ধাতু থাকায় তা শাকসবজি বিষাক্ত করে তুলতে পারে বলে এতো দিন ধারণা করছিলেন গবেষকরা। মোট ১০ ধরনের শাকসবজি মধ্যে ৪ ধরনের শাকসবজিতে কোন বিষ পাননি। এর মধ্যে রয়েছে টমেটো, মটর, রাই ও মুলা। এর মধ্যে ক্যাডমিয়াম,  নিকেল, অ্যালুমিনিয়াম, তামা, লোহা, ম্যাংগানিজ, জিঙ্ক, আর্সেনিক, ক্রোম অথবা সিসার মত উপাদান থাকলেও তা ক্ষতিকর হতে পারে এমন স্তর পর্যন্ত পৌঁছায়নি।

গবেষক উইগার উয়েমলিংক বলেন- “চমৎকার এই ফলাফল দারুণ আশা ব্যঞ্জক। আমরা চার ধরনের শাকসবজি খেতে পারি। এগুলোর স্বাদ চেখে দেখতে আমি উৎসাহী।’’

গবেষক উইগার উয়েমলিংক আরও বলেন- “যত বেশি সম্ভব ফসল উৎপাদনের বিষয়টি পরীক্ষা চালানো দরকার। এতে মঙ্গল গ্রহে বসবাস কারীরা বিভিন্ন ধরনের খাবার খাওয়ার সুযোগ পাবে। এই সবজি গুলোর ভিটামিন ও অন্যান্য পুষ্টিগুণও পরীক্ষা করে ইতিবাচক ফল পাওয়া গেছে।’’ তথ্যসূত্রঃ পিটিআই।

Tags: , , , ,

Related posts

Leave a Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.




Top