প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইন সার্ভিস ইন ঝিনাইদাহ, খুলনা, বাংলাদেশ।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি?

গ্রাফিক্স শব্দের অর্থ হল- অংকন বা রেখা। গ্রাফিক্স বলতে সেই সকল চিত্র সমূহকে বুঝায় যে চিত্র গুলোর সফল পরিসমাপ্তি অংকনের উপর নির্ভরশীল। আর ডিজাইন হচ্ছে কোন নিদিষ্ট জিনিসের পরিকিল্পিত নকশা। কোনো সৃজনশীল কাজের জন্য প্রাথমিক যে পর্যায় তাকেই ডিজাইন বলা হয়। গ্রাফিক্স ডিজাইন হল এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে যে কোন তথ্য বা ছবি শৈল্পিক উপায়ে উপস্থাপন করা যায়। এক কথাই গ্রাফিক্স ডিজাইন বলতে আমরা সেই সকল চিত্র কর্মকে বুঝি যা ছাপার জন্য তৈরি হয়ে থাকে। তবে প্রযুক্তির উন্নয়নের ফলে গ্রাফিক্স ডিজাইন এখন ছাপার গন্ডি পেরিয়ে অনেক দূর এগিয়ে গেছে।

কেন আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন করবেন?

বর্তমান সময়ে গ্রাফিক্স ডিজাইন ছাড়া আপনি কোন কিছু চিন্তা ভাবনাও করতে পারবেন না। আপনি সারাদিন যে সমস্ত পণ্য গুলো ব্যবহার করেন। যেমন- সাবান, শ্যাম্পু, তেল ইত্যাদি। এই সমস্ত পণ্য গুলোর বিজ্ঞাপন ও প্যাকের জন্য গ্রাফিক্স ডিজাইন এর প্রয়োজন। আবার নির্বাচনী প্রচারণার কাজের জন্য। যেমন- ব্যানার, পোস্টার, স্টিকার ইত্যাদি তৈরি করতে গেলেও গ্রাফিক্স ডিজাইন এর প্রয়োজন। আমাদের চারপাশে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর অসংখ্য কাজ ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে, আমরা যেদিকেই তাকাই না কেনো সবখানে যেন গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ। এছাড়াও বর্তমানে বিশ্বের সামাজিক, রাজনীতি, সাংস্কৃতিক সবখানেই রয়েছে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর ছোঁয়া।

গ্রাফিক্স ডিজাইন সব কিছুকে আরো বেশি সুন্দর করতে সাহায্য করে। যেমন- রাতের আধারে এক টুকরো চাঁদ পুরো রাতটাকে পাল্টে দেয় ঠিক তেমন হচ্ছে গ্রাফিক্স ডিজাইন। আবার অনেকেই আছে যারা ওয়েব ডিজাইন এর কাজ করে। তারা প্রোগ্রামিং কোডিং লিখে একটা ওয়েবসাইট তৈরি করলো, কিন্তু সেখানে যদি কোন গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ না থাকে তাহলে কিন্তু ওয়েবসাইটটা দেখতে অতটা ভাল লাগবেনা। তবে সেখানে যদি কিছু গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ। যেমন- লোগো, ব্যানার, বাটন ইত্যাদি যোগ করা হয় আমার বিশ্বাস তখন ঐ ওয়েবসাইটটা দেখতে অনেক সুন্দর লাগবে। আমি অনেক ওয়েবসাইট দেখেছি যেখানে তেমন কিছুই নেই শুধুমাত্র কিছু গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ ব্যাস তাতেই অনেক সুন্দর।

গ্রাফিক্স ডিজাইন এর সাথে ব্যবসার অনেকটা সরাসরি যোগাযোগ রয়েছে আবার গ্রাফিক্স ডিজাইন অনেক জনসচেনতা মূলক কাজের জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে। অনেক ওয়েবসাইট ডিজাইনার আছেন যারা শুধুমাত্র কিছু প্রোগ্রামিং কোডিং এবং গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ ব্যবহার করে অনেক সুন্দর সুন্দর থিম তৈরি করছে। তাই এখন শুধুমাত্র আমি না আপনিও বলতে পারবেন গ্রাফিক্স ডিজাইন করা আমাদের জন্য কতটা দরকার। একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনারের প্রোগ্রামিং কোডিং না হলেও চলে, কিন্তু একজন ওয়েব ডিজাইনারের এর গ্রাফিক্স ডিজাইন ছাড়া চলবে না। কিন্তু মজার বিষয় হল গ্রাফিক্স ডিজাইন এর সফটওয়্যার গুলো কিন্তু প্রোগ্রামিং কোড দিয়েই তৈরি।

প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইন সার্ভিস এর ফিচার সমূহঃ

  • Logo design (লোগো ডিজাইন)
  • Photo editing (ফটো এডিটিং)
  • Photo retouching (ফটো রিটাচিং)
  • Clipping path (ক্লিপিং প্যাথ)
  • Image manipulation (ইমেজ ম্যানিপুলেশন)
  • Web template design (ওয়েব টেমপ্লেট ডিজাইন)
  • Web button design (ওয়েব বাটন ডিজাইন)
  • Web banner design (ওয়েব ব্যানার ডিজাইন)
  • Advertisement banner design (বিজ্ঞাপনের ব্যানার ডিজাইন)
  • Business cards design (বিজনেস কার্ড ডিজাইন)
  • Book cover design (বইয়ের কভার ডিজাইন)
  • Brochures design (ব্রোশিউর ডিজাইন)
  • Leaflet design (লিফলেট ডিজাইন)
  • Billboards design (বিলবোর্ড ডিজাইন)
  • Product pack design (প্রোডাক্ট প্যাক ডিজাইন)
  • Posters design (পোষ্টার ডিজাইন)
  • Magazine layout design (ম্যাগাজিন লেআউট ডিজাইন)
  • Newspaper layout design (নিউজপেপার লেআউট ডিজাইন)
  • Calendar design (ক্যালেন্ডার ডিজাইন)
  • Greeting cards design (গ্রেটিং কার্ড ডিজাইন)
  • Poster cards design (পোষ্টার কার্ড ডিজাইন)
  • Flyer design (ফ্লাইয়ার ডিজাইন)
  • Product hologram design (প্রোডাক্ট হলোগ্রাম ডিজাইন)
  • Icon design (আইকোন ডিজাইন)
  • Digital image processing (ডিজিটাল ইমেজ প্রসেসিং)
  • Sticker design (স্টিকার ডিজাইন)
  • Memo design (মেমো ডিজাইন)
  • Id cards design (আইডি কার্ড ডিজাইন)
  • Signboard design (সাইনবোর্ড ডিজাইন)
  • Digital sign (ডিজিটাল সাইন)
  • Typography design (টাইপোগ্রাফি ডিজাইন)
  • CD covers design (সিডি কভার ডিজাইন)
  • UI design etc (ইউআই ডিজাইন ইত্যাদি)
তাহলে আর দেরী না করে না করে আজই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আমরাই দিচ্ছি সবচেয়ে সাশ্রয়ী মূল্যে মানসম্মত গ্রাফিক্স ডিজাইন সার্ভিস।

Top